হস্ত মৈথুনের উপকারিতা ও অপকারিতা - সপ্তাহে কতবার হস্তমৈথুন নিরাপদ রাখে স্বাস্থ্য

প্রিয় পাঠক আসসালামুআলাইকুম লজ্জা নয় জানার জন্য আজকের আর্টিকেলটি। আজকে আর্টিকেলটি তাদের জন্য যারা নিয়মিত হস্তমৈথুন করে এবং এই বিষয়টা নিয়ে চিন্তায় থাকে তাদের জন্য আজকের আর্টিকেলটি আমরা আলোচনা করবো সপ্তাহে কতবার হস্তমৈথুন নিরাপদ রাখে স্বাস্থ্য । একেকজনের ক্ষেতে একেকরকম হয়ে থাকলে চিকিৎসা বিঞ্জানে বলা হয়ে থাকে সপ্তাহে ৫ বার হস্তমৈথুন স্বাস্থ্যের জন্য জরুলী বলে সিমানা নির্দেশ করেন ।
masterbation
তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক সপ্তাহে কতবার হস্তমৈথুন নিরাপদ রাখে স্বাস্থ্য এই বিষয়ে ।চিকিৎসা বিঞ্জানী পল্লবী জাণীয়েছেন যে , হস্তমৈথুন নির্ভর করে শারীরিক সুস্থতা ,যৌন উত্তেজনা ধরন নিয়ে কাজ করে ।নিয়মিত হস্তমৈথুন মন প্রফুল্ল রাখে , ক্লান্তি কমায় ,প্রস্টেট সুস্থ থাকে , ভালো ঘুম হয় , রোগ প্রতিরোধ ক্ষ্মতাও গড়ে তুলে ।

হস্তমৈথুন কি

হস্তমৈথুন হলো এমন এক ধরনের যৌনক্রিয়া যাতে একজন পুরুষ বা একজন নারী তার সঙ্গী বা সঙ্গীনির অংশগ্রহন ছাড়া যৌনসুখ লাভের চেষ্টা করে তখন তাকে হস্তমৈথুন বলে। হস্তমৈথুন বলতে মূলত বলা হয়ে থাকে পুরুষ হাত দিয়ে এবং নারী তার যোনী ঘর্ঘন করে বলে একে হস্তমৈথুন বলে।হস্তমৈথুন হচ্ছে একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে নারী ও পুরুষ তার নিজেদের যৌননাঙ্গে যৌন উদ্দীপনা প্রদান করে এবং উত্তেজনা স্রষ্টি করে এবং যৌন সুখ লাভ করে । এই উদ্দীপনায় সূষ্টি হয় হাত ,আঙ্গুল , নিত্যদিনের প্রয়জনীয় বস্তু দিয়ে ।

বিভিন্ন রকমের যৌনখেলনা যেমন , ভাইব্রেটর , আঙ্গুলিসঞ্চলন , হ্যান্ডজব যা হস্তমৈথুনের জন্য যৌন ক্রিয়ার কাজ করে। হস্তমৈথুন নারী এবং পুরুষের জন্য মূলত একই কৌশল উভয় লিঙ্গের ক্ষেত্রে একই রকম যা ,যৌনাঙ্গ বা তার আশেপাশের এলাকায় নাড়াচাড়া ও ঘর্ষন করে থাকে। এটি আঞগুল দ্বারা বা আন্যকোন কিছুর মাধ্যমে হতে পারে (যেমন ঃবালিশ ) যার ফলে তার শরীলে উত্তেজনার স্রষ্টি হয় ।তার পরে এক সময় বীর্যপাত হয় এবং সে শান্তি লাভ করে ।

প্রতিদিন বীর্য ফেললে কি হয়

আমাদের দেশের যুবকেরা যখন কিশোর থেকে বয়ঃসন্দিতে পদার্পণ করে তখন তাদের মধ্যে এক অন্যরকম পরিবর্তন দেখা দেয় । তখন তারা তাদের মানসিক সুখ লাভের জন্য হস্তমৈথুন করে । এমনও অনেক যুবক রয়েছে যারা প্রতিদিনই হস্তমৈথুন করে যার ফলে বীর্য অনেক পাতলা হয়ে যায় । আজকে আমি আপনাদের জানাবো প্রতিদিন বীর্য ফেললে কি হয় এ বিষয়ে । প্রতিদিন বীর্য ফেললে আপনার বীর্য পাতলা হয়ে যাবে । অনেকেই জানে না কি খেলে বীর্য বৃদ্ধি পায় ।

বেশিক্ষণ সহবাস করতে না পারা এর অন্যতম একটি কারণ । সন্তান জন্মদানে ব্যর্থ হওয়া তাছাড়াও শরীরে অনেক ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হয় । বীর্য সাধারনত মাসে দুইবার ফেলা উচিত তবে হস্তমৈথুনের মাধ্যমে নয় । সাধারণত একজন মানুষের প্রতি মাসে দুইবার করে স্বপ্নদোষ হয়ে থাকে ওই সময় আমাদের বীর্যে থাকা ক্ষতিকর এবং ময়লা পদার্থগুলো বের হয়ে যায় । হস্তমৈথুনের জন্য আমাদের শরীরের শুকনা না কমে যায় যা আমাদের শরীরের জন্য ক্ষতিকর । 

ছেলে এবং মেয়ে যেই হোক না কেন সে যদি প্রতিদিন বীর্য ফেলে তাহলে তার শরীর হয়ে ওঠে রোগের আস্তানা । প্রসাবের জ্বালাপোড়া , চোখের ক্ষতি হয় , যৌন সক্ষমতা কমে যায় , শরীর দুর্বল হয়ে যায় , মাথাব্যথার সৃষ্টি হয় , তাছাড়াও বিয়ের পর অনেক সমস্যা হয় সেগুলো হলঃ স্ত্রীর সাথে সহবাস করার অনিচ্ছা তৈরি হয় , সন্তান জন্মদানে ব্যর্থ হয় , দ্রুত বীর্যপাত হয় যার ফলে স্ত্রীকে সন্তুষ্টি দিতে পারেনা । 

তাহলে আজকের আর্টিকেলটি পড়ে আপনি জানতে পারলেন প্রতিদিন বীর্য ফেললে কি কি সমস্যা হয় । সেজন্য আপনিও এখন থেকে সাবধানে থাকবেন এবং সচেতন থাকবেন যাতে আপনি এ সকল সমস্যার সম্মুখীন না হন । আপনিও যদি প্রতিদিন বীর্য ফেলে থাকেন তাহলে আপনার অভ্যাস পরিবর্তন করুন এবং নিজেকে সুস্থ রাখুন ।

কত দিন পর পর বীর্য ফেলা উচিত

হস্তমৈথুন করে বীর্য ফেলা ইসলামের সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ কিন্তু তারপরে আমরা এটা করে থাকি শুধু মানসিক শান্তি পাওয়ার জন্য । আজকের আর্টিকেলে আমি আপনাদের জানাবো কতদিন পর পর বীর্য ফেলা উচিত । অনেকেই জানিনা যে হস্তমৈথুন করলে কি কি ক্ষতি হয় এই কারণেই হস্তমৈথুন করে থাকে । হস্তমৈথুন করার ফলে শরীরে থেকে যে বীর্য গুলো বের হয়ে গেছে সেগুলো আর কখনোই পূরণ হয় না । 

হস্তমৈথুন করা কখন উচিত নয় কারণ হস্তমৈথুন করার ফলে আপনার শরীরের অনেক ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হয় যার ফলে আপনি বিবাহ করতে ভয় পান এবং আপনার দূরত্ব বীর্যপাত হয়। হস্তমৈথুনের ফলে বিবাহের পরে আপনি আপনার স্ত্রীকে তার চাহিদা মত সুখ দিতে পারেন না কারণ আপনার দ্রুতই বীর্যপাত হয়ে যাবে । সেজন্য স্বাভাবিক নিয়মে হস্তমৈথুন করা ঠিক নয় । এমনিতেই মাসে দুই একবার স্বপ্নদোষ হলে শরীরের ভেতরে দূষিত পদার্থ এমনিতেই বের হয়ে যায় । 

আসলে নিজে ইচ্ছাকৃতভাবে কখনোই বীর্য ফেলা ঠিক নাই বীর্যের পরিমাণ যখন বেড়ে যায় তখন এমনিতেই স্বপ্ন দেশের মাধ্যমে বীর্যপাত হয়ে যায় । এক মাসের মধ্যে আপনার এমনি এক থেকে দুইবার বীর্যপাত হবে এটাই আপনার জন্য স্বাভাবিক এর বেশি নিজে ইচ্ছাকৃতভাবে হস্তমৈথুন করে বীর্য ফেললে নিজের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর । তাহলে আজকের আর্টিকেলটি পড়ে আপনি বুঝতে পারলেন কতদিন পরপর বীর্য ফেলা উচিত সে বিষয়ে ।

মেয়েদের হস্তমৈথুন

নারীরা বিভিন্ন মাধ্যমে হস্তমৈথুন করে থাকে তার মধ্যে অন্যতম কিছু হচ্ছে
  • ভালভা ও তৎসংলঙ্গ এলাকায় ঘর্ষন করা
  • ভগাঙ্কুরের মর্দন
  • যৌনীগহব্বরে আঙ্গুলি চালানো ।
সাধারণত মেয়েরা আঙ্গুল ব্যাভার করে তাদের যৌনাঙ্গ ঘর্ষন করে থাকে । সাধারনত মেয়েরা বূদ্ধাঙ্গুল ও মধ্যমে হস্তমৈথুন করে থাকে ।তাছাড়া যৌনি পথে মাঝের চালনা করা হয় তাছাড়া কোন কোন নারী জি- স্পটে ঘর্ষন সূষ্টি করে । অনেক নারী তার যৌনি পথ পিচ্ছিলি করার জন্য বাড়তি লুব্রিকেটিং বা তেল জাতীয় পদার্থ ব্যাবহার করে থাকে । তাছাড়া তারা বিভিন্ন রকমের লোশন ব্যাবহার করে থাকে । 

অনেক নারীরা হস্তমৈথুনের সময় নিজের স্তন ও স্তনের আশেপাশে হাত দিয়ে বুলাতে পচ্ছন্দ করে ।প্রত্নতাত্ত্বিক মনে করেন যে ,প্রাচীনকালে নারীরা হস্তমৈথুনের জন্য পোরামাটি লিঙ্গে ব্যাবহার করতো ।কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন কূত্রিম বস্তু ব্যাবহার করে তারা তাদের চাহিদা মেটানোর জন্য কম্পক দন্ড , কৃত্রিম শিশ্ন ব্যাবহার করে হস্তমৈথুন করে থাকে । কিন্তু পুরুষের মত মেয়েদের বীর্যপাত হয় না কিন্তু তারা সুখ লাভ করে ।

মেয়েদের হস্ত মৈথুনের ক্ষতিকর প্রভাব ইসলাম

বর্তমানে এমন একটি অভ্যাস হয়ে গেছে যেটা ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরাও করে থাকে । পরিবর্তনের সাথে সাথে বর্তমান সময়ে অনেক কিছুর পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায় । তেমনি মানুষের যৌন চাহিদার নানা রকম পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাচ্ছে যেমন দেখা যাচ্ছে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরাও হস্তমৈথুন করে । একটা সময় ছিল যখন মেয়েরা তাদের স্বামীর সাথে সহবাস ছাড়া এসব বিষয় নিয়ে চিন্তা করত না কিন্তু সময়ের পরিবর্তনে বর্তমানে দেখা যাচ্ছে মেয়েদের যৌন চাহিদার অনেক পরিবর্তন ঘটেছে । 

অনেকেই প্রশ্ন করে থাকে ছেলেরা তো হাত দিয়ে হস্তমৈথুন করে কিন্তু মেয়েরা কিভাবে হস্তমৈথুন করে তাদের জন্য উত্তর হল মেয়েরা মূলত হস্তমৈথুন করে থাকে তাদের যোনিতে আঙ্গুল প্রবেশ করে বীর্যপাত করে এবং সুখ লাভ করে । মেয়েরা যদি হস্তমৈথুন করে তাহলে ছেলেদের মত ক্ষতি হয় না কিন্তু মেয়েরা যদি দীর্ঘদিন হস্তমৈথুন করে তাহলে বিয়ের পর তাদের স্বামীর ভালোবাসা পাওয়ার ইচ্ছে থাকে না । 

হস্তমৈথুন করার ফলে শরীর থেকে টেসটোস্টেরন বের হয়ে যায় যার ফলে হজম , খাওয়ার অরুচি , এবং পেশির শক্তি কমে যায় । নমিতা হস্তমৈথুনের ফলে সন্তান জন্ম দেওয়ার সক্ষমতা কমে যায়, এছাড়াও নিয়মিত হস্তমৈথুনের ফলে আপনার চিন্তাই প্রভাব পড়ে । দিনরাত শরীর নিয়ে চিন্তার ফলে আপনার কোন কাজে মন বসবে না ।

হস্তমৈথুনের ফলে যে সকল সমস্যা গুলো দেখা দেয় সেগুলো হল
  • ধাতু দুর্বলতা
  • লিঙ্গের স্থিতিশীলতা নষ্ট হয়ে যাওয়া
  • পুরুষত্বহীনতা
  • স্বাস্থ্যহীনতা
  • রক্তচাপ বেড়ে যাওয়া কমে যাওয়া
  • চেহারার উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়ে যাওয়া
  • ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বেড়ে যাই
  • কোমরে ব্যথা হওয়া
  • শরীর নরম হয়ে যাওয়া
  • মূত্র ধরনের অক্ষমতা

হস্ত মৈথুনের উপকারিতা ও অপকারিতা

আমাদের বর্তমান সময়ে হস্তমৈথুন একটি সামাজিক সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে । বর্তমান সমাজে নারী এবং পুরুষ উভয়েই হস্তমৈথুনের মতো কাজে লিপ্ত থাকে । একটা জরিপে দেখা গেছে যে ৯০ ভাগ পুরুষ ৮৯ ভাগ মহিলা হস্তমৈথুন করে । সপ্তাহে একবার দুইবার হস্তমৈথুন করলে এটা স্বাস্থ্যের জন্য তেমন কোন ক্ষতিকর দিক নয় কিন্তু আপনি যদি এর চেয়ে অধিক মাত্রায় হস্তমৈথুন করেন তাহলে আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতি হবে ।

ছেলেদের ক্ষেত্রেঃ হস্তমৈথুন করলে মাথা ব্যথা ভালো হয় , শরীলে প্রফুল্লতা হয় , এবং ঘুম ভালো হয় , মেয়েদের ক্ষেত্রেই একই মেয়েরা যদি হস্তমৈথুন করে তাহলে তাদের পিরিয়ডের সময় ব্যথার অনুভব কম হয় । আপনি যদি নিয়মিত হস্তমৈথুন করেন তাহলে এর অনেক অপকারিতা রয়েছে গুলো হলোঃ ছেলেদের ক্ষেত্রে হস্তমৈথুনের ফলে আপনার দ্রুত বীর্যপাত হয়ে যায় সেজন্য বিয়ের পর আপনি আপনার স্ত্রীকে পর্যাপ্ত সময় দিতে পারবেন না , বিয়ে করতে ভয় লাগে , শরীর দুর্বল হয়ে যায় , মাথা ব্যথা করে ।

মেয়েদের ক্ষেত্রেঃ সন্তান জন্মদানে ব্যর্থ হয় , স্বামীর ভালোবাসা পাওয়ার ইচ্ছে থাকে না , মানসিক অশান্তিতে থাকে । হস্তমৈথুনের কারণে বর্তমান সময়ে আমাদের সমাজের অনেক ছেলেমেয়েদের সংসার ভেঙে যায় কারণ তারা নিজেরা হস্তমৈথুনের মাধ্যমে নিজেদের সুখ লাভ করার চেষ্টা করে যার ফলে তাদের স্ত্রী কিংবা স্বামীর প্রতি ভালোবাসা থাকে না । 

প্রিয় পাঠক আজকের আর্টিকেলটি পড়ে যদি আপনার কোন উপকার হয় তাহলেই আমাদের সার্থকতা আজকের আর্টিকেলটি পড়ে যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে জানাবেন । আপনার বন্ধু যদি হস্তমৈথুনের মতো সমস্যায় ভুগে তাহলে তাকে শেয়ার করতে কখনোই ভুলবেন না ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url