মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক আজকের আর্টিকেলের মূল বিষয় হচ্ছে  মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো । অনেকে মেয়েরা আছে যারা চিন্তায় থাকে মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো তারা অনেকেই জানে। আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করবো মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো সেই বিষয়ে।

মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

মেয়েরা চাই তাদের নিজেদের চেহেরা সুন্দর করার জন্য তারা ফেসওয়াস ব্যাবহার করে থাকে।সেই জন্য তারা চিন্তাই থাকে মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো। বিস্তারিত জানতে আজকের আর্টিকেলটি মনোযোস সহকারে পড়ুন।

পোস্ট সূচিপত্রঃমেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

কোন ক্রিম সবচেয়ে ভালো - মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

মেয়েদের ত্বকের জন্য কোন ক্রিম গুলো ভালো আজকে থাকেলে সে বিষয়ে আলোচনা করা হবে। সবার ত্বকের জন্য একই রকম ফেসওয়াশ ব্যবহার করা ঠিক না। কেননা আপনার যদি ত্বক তৈলাক্ত হয় তাহলে আপনি যদি আপনার ত্বকের জন্য যে ফেসওয়াশ ব্যবহার করা দরকার সেটা ব্যবহার না করেন তাহলে সেটা আপনার ত্বকের জন্য কাজ করবে না । 

আজকের আর্টিকেলে আমি আপনাদের জানাবো মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারী পড়ুন। মেয়েদের ত্বকের জন্য যে ক্রিমগুলো সবচেয়ে ভালো সেগুলোর নাম নিচে উল্লেখ করা হলো।

  • নিভিয়া ক্রিম
  • নেভিয়া সফট লাইট ময়শ্চারাইজার
  • Lakme absolute perfect radiance
  • Himalaya herbal revitalising night cream
  •  Lotus herbal white glow 
  • Olay Moisturizing Cream
  • Fair and lovely advanced multi vitamin
  • Pond’s Dry Skin Cream
  • Nivea Night Cream
  • Dove deep moisturistation cream
  • Nivea Night Cream

উপরে উল্লেখিত প্রত্যেকটি ক্রিম মেয়েদের জন্য ভালো। এই ক্রিমগুলো যদি মেয়েরা ব্যবহার করে তাহলে তাদের তো সুন্দর এবং মশ্চারাইজার হবে। ভালো ফলাফল এবং ব্যবহার বিধি জানতে ব্যবহার করে দেখুন।

মেয়েদের ত্বক ফর্সা করার সবচেয়ে ভালো ক্রিম

মেয়েদের ত্বক ফর্সা করার সবচেয়ে ভালো ক্রিম যেগুলো সেই বিষয়ে মেয়েরা গুগলে সার্চ করে থাকে।কারন মেয়েরা চাই তাদের ত্বক যেন ফর্স হয়।কারন ছেলেরাও পচ্ছন্দ করে ফর্সা মেয়ে ।মেয়েদের সেই চাহিদার কথা মাথায় রেখে প্রাসাধানী নির্মাতা কম্পানিগুলো জন্য নিয়ে আসে মেয়েদের ত্বক ফর্সা করার সবচেয়ে ভালো ক্রিম।সব মেয়েরা চাই ফর্সা হতে ।মেয়েরা বরাবরই রূপ সচেতন ।

মেয়েরা না ধরনের কাজে ব্যাস্ত থাকার কারনে সব সময় ত্বকের যত্ন করতে পারে না।অতিরিক্ত ব্যস্ততা এবং মানসিক ও শারীরিক সমস্যায় খাওয়া-দাওয়া অবহেলার ফলে নারীদের ত্বকে উজ্জ্বলতা দিনে দিনে হারিয়ে যাই। সেজন্য সে সকল নারীরা এমন কিছু উপায় খুঁজে যার মাধ্যমে তারা ঘরে বসেই ত্বক ফর্সা করতে পারে। আজকে আমরা আপনাদের মাঝে শেয়ার করব মেয়েদের তো ফর্সা করার সবচেয়ে ভালো ক্রিম এ বিষয়টি নিয়ে ।

  • নিভিয়া ক্রিম
  • নেভিয়া সফট লাইট ময়শ্চারাইজার
  • Lakme absolute perfect radiance
  • Himalaya herbal revitalising night cream
  •  Lotus herbal white glow 
  • Olay Moisturizing Cream
  • Fair and lovely advanced multi vitamin
  • Pond’s Dry Skin Cream
  • Nivea Night Cream
  • Dove deep moisturistation cream
  • Nivea Night Cream
উপরের উল্লেখিত ক্রিমগুলো মেয়েদের ত্বক ফর্সা করার জন্য বিশেষ ভূমিকা পালন করে। যারা সৌন্দর্যের সচেতন রয়েছেন তারাই সৌন্দর্য চর্চার ক্ষেত্রে কখনো নিজের সাথে আপোষ করে না। নিজেদেরকে অন্যদের সাথে আকর্ষণীয় করে উপস্থাপন করতে নারীরা কখনোই নিজেকে সৌন্দর্য চর্চায় কম রাখে না। হয়তো মেয়েরা যুগে যুগে নানা ধরনের ক্রিম ও ফেসওয়াশ ব্যবহার করছে কিন্তু উপরে উল্লেখিত ক্রিমগুলো হলো সবচেয়ে উত্তম এবং ব্যবহার উপযোগী ।

কোন ক্রিম মুখের জন্য ভালো - মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

প্রিয় পাঠক আপনারা যারা আমদের এই আর্টিকেলটি পড়ছেন তারা নিশ্চয় কোন ক্রিম মুখের জন্য ভালো এই বিষয়ে জানতে চেয়েছেন। তাহলে আমি আপনাকে বলব আপনি সঠিক জায়গাতে এসেছেন। আজকে আমরা আলোচনা করব মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো সে বিষয়ে। তারপরে আমরা আজকে আলোচনা করব কোন ক্রিম মুখের জন্য সবচেয়ে ভালো এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো।বিস্তারি জানতে আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

  • নিভিয়া ক্রিম
  • নেভিয়া সফট লাইট ময়শ্চারাইজার
  • Lakme absolute perfect radiance
  • Himalaya herbal revitalising night cream
  •  Lotus herbal white glow 
  • Olay Moisturizing Cream
  • Fair and lovely advanced multi vitamin
  • Pond’s Dry Skin Cream
  • Nivea Night Cream
  • Dove deep moisturistation cream

  • Nivea Night Cream

যে সকল মেয়েরা কোন ক্রিম মুখের জন্য ভালো আপনারা খুজতেছিলেন আজকের আর্টিকেলটি তাদের জন অনেক গুরুত্বপূর্ন।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য ভালো ফেসওয়াশ - মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

যাদের ত্বক অয়েলি বা তৈলাক্ত তাদের নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার রাখা উচিত । অনেক সময় দেখা যায় ফেসওয়াশ ব্যবহারের পরেও আমাদের টকে অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব চলে আসে। যার ফলে এক সময় ত্বকে আরো বেশি তৈলাক্ত ভাব চলে আসে । কারণ হলো তোকে যে সাধারণ একটা তৈলাক্ত ক ভাব থাকে সেটাও যখন চলে যায় তখন হিতের বিপরীত হয়ে যায়। সেই সাথে তখন আপনার ত্বকে ব্রণের সংখ্যা বৃদ্ধি পায়।

আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব তৈলাক্ত ত্বকের জন্য ভালো ফেসওয়াশ কোনটি এ বিষয়ে। আপনারা যারা তৈলাক্তক ত্বকের জন্য ভালো ফেসওয়াশ খুঁজছেন আপনারা যারা আর্টিকেলটি পড়ছেন তারা তারা ঠিক জায়গাতেই এসেছেন। আজকের আর্টিকেলে আমরা তৈলাক্ত ত্বকের জন্য যে ফেসওয়াশগুলো ভালো সে বিষয়ে আলোচনা করব। মেয়েরা তাদের রূপচর্চার জন্য সব সময় সবচেয়ে ভালো ফেসওয়াশ খুঁজে থাকেন তাদের জন্য আজকের আর্টিকেলটি ।

  • lakme facewash
  • Lotus facewash
  • PONDS facewash
  • Simple facewase
  • Clean clear
  • fear and lavely
  • OIC man facewash
  • Darmalojical facewash
  • Nitieojina facewash

উপরে উল্লেখিত ফেসওয়াশ গুলো তৈলাক্ত ত্বকের জন্য অনেক কার্যকরী। যাদের ত্বকে তৈলাক্ত ভাব বেশি তাদের জন্য উপরে উল্লেখিত ফেসওয়াশগুলো ভালো কাজ করে। উপরে উল্লেখিত যে কোন একটি ফেসওয়াশ আপনি ব্যবহার করতে পারেন। ফেসওয়াশ ব্যবহার করার পরে আপনার ত্বক পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করবেন। তাহলে আপনার অয়েলি স্ক্রিনে ব্রণের সংখ্যা কমে যাবে। গবেষণায় দেখা গেছে যে যারা সবসময় ত্বক পরিষ্কার রাখে তাদের ব্রণের সংখ্যা কমে যায়।

ব্রণ দূর করার ফেসওয়াশ - মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

অনেকেই রয়েছে যারা ব্রণ দূর করার জন্য কার্যকরী ফেসওয়াশ গুগলে সার্চ করে খুঁজে থাকেন। কিছু ফেসওয়াশ রয়েছে যেগুলো ব্রণ দূর করতে খুব কার্যকারী কাজ করে। আজকে আলোচনা করব ব্রণ দূর করার কিছু ভালো ফেসওয়াশ নিয়ে।

  • ল্যাকমি ব্লাশ এন্ড গ্লো ফেসওয়াসঃ এই ফেসওয়াসটি মূলত ব্রণ দূর করার এবং চেহারা ফর্সা করার জন্য ব্যবহার করা হয় । এই শিশুটির মূল উপাদান হলো ফলের নির্যাস যা স্ক্রাবিং যুক্ত। এটি আপনার ত্বকের তেলতেলে ভাব এবং ব্রণ দূর করতে সাহায্য করে।
  • ডার্মালাজিকা ক্লিয়ার ফ্লোমিং ফেসওয়াশঃ এই ফেসওয়াশ টি ত্বকের মৃতকোষ এবং তৈলাক্ত ভাব দূর করে লোমকূপ পরিষ্কার রাখে। সেই সাথে ত্বকের সুন্দরর্য বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।
  • সিম্পল ডেইলি স্কিন পিউরিফাইং ফেসওয়াশঃএই ফেসওয়াশটির প্রধান উপকরণ উইথ হ্যাজেল,জিংক আর থাইম।যার মাধ্যমে আপনার ত্বক হবে সুন্দর ও নরম।
  • রাজকন্য একনে ফাইটিং ফেসিয়াল ওয়াশ উইথ জোজবা বিডস ঃ এই ফেসওয়াস টি চমৎকার এবং বাজেট ফ্রেন্ডলি ফেসওয়াস। এর প্রাকৃতিক উপাদান আপনার ত্বকের বড় দূর করার পাশাপাশি ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়। এই ফেসওয়াসটি তে থাকা উপাদান গুলি সবকিছুই প্রাকৃতিক সেই জন্য আপনার ত্বকের ব্রণ দূর করতে খুব ভালো কাজ করবে।

এছাড়াও আরো অনেক ফেসওয়াশ রয়েছে যেগুলো আপনারা ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে আপনার ত্বকের জন্য কোনটি ভাল সে অনুযায়ী ব্যবহার করতে পারেন। তাছাড়া উপরে উল্লেখিত যে কোন একটি ফেসওয়াশ ব্যবহার করলেই আপনি আপনার ত্বকের ব্রণ ভুল করতে পারবেন এবং উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে কাজ করে।

ফেসওয়াশ ব্যবহারের নিয়ম - মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

আপনারা যারা মেয়েদের কোন ফেসওয়াস সবচেয়ে ভালো সেটা লিখে গুগলে সার্চ করে কোন একটি ফেসওয়াস পেয়েছেন এখন ভাবছেন ফেসওয়াশ ব্যবহারের নিয়ম কি সেটা নিয়ে। ত্বকের যত্ন নিবা মুখ পরিষ্কার করতে ফেসওয়াশ ব্যবহার করা হয়। ফেসওয়াশ ব্যবহার করা হয় মুখের কালচে ভাব দূর করতে। ফেসওয়াশ ব্যবহার করার ফলে শুধু ত্বক পরিষ্কার হয় না তোকে নিচে লুকিয়ে থাকা ময়লাগুলো পরিষ্কার করে ফেলে।

কিন্তু যদি ফেসওয়াশ সঠিকভাবে ব্যবহার না করা হয় তবে মেকাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সমস্যায় তৈরি হতে পারে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি এবং ময়শ্চারাইজার ধরে রাখার জন্য সাহায্য করে । ফেসওয়াশ সাধারণত ২৪ ঘন্টায় ২ বার ব্যবহার করা উচিত সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরে এবং রাত্রে ঘুমাতে যাওয়ার আগে। এখন আমি ফেসওয়াশ ব্যবহারের কিছু নিয়ম আপনার জন্য বলব যে নিয়মে ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে আপনি অনেক বেশি উপকৃত হবেন।

  • ফেসওয়াশ ব্যবহার করার আগে আপনার মুখ পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে তারপর ফেসওয়াশ দিয়ে মুগ্ধ হতে হবে।
  • মুখে ফেস ওয়াশ ব্যবহার করার আগে আপনি সাবান কিংবা পানি দিয়ে মুখ ভালোভাবে ধুয়ে নিন।
  • মুখে ফেসওয়াশ ব্যবহার করার জন্য তিন থেকে চার ফোঁটা ফেসওয়াশ নিয়ে মুখে ভালোভাবে মাখতে হবে তারপর কিছুক্ষণ হাত দিয়ে ধোয়ার পরে ধুয়ে ফেলতে হবে।
  • ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করার সময় ঘাড়, কান  এবং গলা পরিষ্কার করে নিতে হবে।
  • মুখ ধোয়ার পর টিস্যু বা নরম তোয়ালে দিয়ে মুখ ভালোভাবে মুছে নিতে হবে।

garnier face wash (গানিয়ার ফেসওয়াশ) - মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

আপনারা যারা মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ ভালো জানতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আমি বলছি, মেয়েদের জন্য গার্নিয়ার ফেসওয়াশ তাদের ত্বকের জন্য অনেক ভালো। সব কোম্পানির ফেসওয়াশগুলোই কম বেশি উপকার করে থাকে। কিন্তু আপনারা অনেকেই রয়েছেন যারা বিভিন্ন ব্যান্ডের ফেসওয়াশ ব্যবহার করেন।

তবে আমি আপনাকে একটি বিষয়ে সাজেস্ট করব আপনার ত্বকে যদি কোন সমস্যা থেকে থাকে তাহলে বাংলাদেশের বাংলাদেশের কোন ফেসওয়াশ না ব্যবহার করার জন্য। তবে আপনি  যদি সাধারণভাবে ত্বকের যত্ন নেওয়ার জন্য ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে চান তাহলে গার্নিয়ার ফেসওয়াস টি ব্যবহার করতে পারেন। এখন নিচে আলোচনা করা হবে গার্নিয়ার ফেসওয়াস ব্যবহারের উপকারিতা সম্পর্কে।

  • গার্নিয়ার ফেসওয়াস ব্যবহার করলে ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর হয়।
  • গানিয়ার ফেসওয়াস ব্যবহার করলে ত্বকের কালো দাগ দূর হয়ে যায়।
  • গানিয়ার ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে ত্বকের উজ্জ্বলতা পূর্বে চেয়ে বৃদ্ধি পায়।
  • গার্নিয়ার ফেসওয়াশ ব্যবহার করলে তাকে ব্রণের মাত্রা কমে।
  • গার্নিয়ার ফেসওয়াশ ব্যবহার করার ফলে অল্প কিছুদিনের মধ্যে কাউকে উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়।
  • গার্নিয়ার ফেসওয়াশ ৫০ গ্রাম যার দাম ১৯৯ টাকা এটি ইন্ডিয়ান প্রোডাক্ট।
  • আপনি গার্নিয়ার ফেসওয়াস ব্যবহারের করার সময় অবশ্যই বিদেশি ফেসওয়াশগুলো ব্যবহার করবেন কারন আমাদের বাংলাদেশের ফেসওয়াশগুলোর বেশিরভাগই নকল হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

Himalaya neem face wash(হিমালিয়া নিম ফেসওয়াশ) - মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো

আপনারা যারা মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো সেটা খুঁজছেন তখন আপনারা এখন আপনার কাছে পেয়েছেন হিমালিয়া নিম ফেসওয়াশ। যে ফেসওয়াশটি আপনার ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতেকাজ করে। হিমালিয়া নিম ফেসওয়াশ আপনার ত্বক থেকে দ্রুত ময়লাবাজ তৈল পদার্থ দূর করতে চাইলে হিমালায়া নিম ফেসওয়াশ টি সবচেয়ে নিরাপদ। হিমালিয়া ফেসওয়াশে রয়েছে প্রাকৃতিক উপাদনের নির্যাস। হিমালিয়া নিম ফেসওয়াস আপনার মুখে ব্রনের দাগ দূর করতে সাহায্য করে।

লেখকের শেষকথা ঃমেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াশ সবচেয়ে ভালো 

আজকের আর্টিকেলে আমরা আপনাদের দেখানোর চেষ্টা করেছি মেয়েদের জন্য কোন ফেসওয়াস সবচেয়ে ভালো আশা করি আজকের আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা বুঝতে পেরেছেন। এ বিষয়ে যদি আপনাদের আরো কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন। আজকের আর্টিকেলটি পড়ে যদি আপনাদের কোন উপকার হয় তাহলে আমাদের সার্থকতা। 

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url