ছেলেদের উওেজনা করার উপায়

অনেক মহিলাই আছে জানি না যে কিভাবে এবং খুব গুরুত্ব ছেলেদের উত্তেজনা করা যায় এবং সহবাসের সময় ছেলেদের আকর্ষণের জায়গা কোনটি। যে সকল মেয়েরা এসব বিষয়ে জানেনা তাদের জন্য আজকের আর্টিকেলটি।


তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক সহবাসের সময় ছেলেদের আকর্ষণের জায়গা এবং ছেলেদের উওেজনা করার উপায় আপনারা মেয়েরা যারা এই বিষয় সম্পর্কে জানেন না তারা আজকের রাতগুলোকে মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

পোস্ট সূচিপত্রঃছেলেদের উওেজনা করার উপায়

যৌন উত্তেজনা কি
প্রথমবার কিভাবে সহবাস করতে হয়
ছেলেদের শারীরিক চাহিদা
সহবাসের সময় করণীয়
সহবাসের আগে কি করতে হয়
ছেলেদের উওেজনা করার উপায়
সহবাসের সময় ছেলেদের আকর্ষণের জায়গা
লেখকের শেষ কথা

যৌন উত্তেজনা কি

যৌন উত্তেজনা বলতে বোঝানো হয়েছে যে ,যৌন মিলনের প্রস্তুতিতে বা যৌন উদ্দীপনার সংস্পরে এলে শরীরবৃত্তীয় ও মনস্তাত্বিক প্রতিক্রিয়া হিসাবে শরীর ও মনের বেশ কিছু শরীরবৃত্তীয় প্রতিক্রিয়া ঘটে এবং সবাসের সময় ও তা চলতে থাকে।যৌন উত্তেজনা বেশ কয়েকটি পর্যায়ে হয়ে থাকে যেমন মানসিক উত্তেজনা এবং এর সাথে যে শারীরবৃত্তীয় পরিবর্তনগুলো ঘটে তার বাহিরে কোনো প্রকৃত যৌন  কার্যকলাপ হতে পারে না। পর্যাপ্ত যৌন উত্তেজনা দেওয়া হয়। একজন মানুষ শারীরিক এবং মানসিকভাবে যৌন উত্তেজিত হতে পারে।

প্রথমবার কিভাবে সহবাস করতে হয়

যে সকল নারী এবং পুরুষ তাদের জীবনে একবারও কারো সাথে যৌন মিলন করে নাই তাদেরকে বলা হয় ভার্জিন বা সতী। অনেক নারী এবং পুরুষ যারা জানে না প্রথমবার কিভাবে সহবাস করতে হয় তাদের জন্যই আজকের এই আর্টিকেলটি। প্রথমবার মিলনের নিয়ম কানুন গুলো মিলনকে মধুর করে তোলা। ছেলেদের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ না হলেও মেয়েদের ক্ষেত্রে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। 

কারণ কোন মেয়ে যদি বিয়ের আগে কখনো যৌন মিলন না করে থাকে তাহলে তার যৌনপথ থেকে কম বেশি রক্তক্ষরণ হতে পারে। প্রথমবার মিলন করতে যদি উগ্র বা ভুল হয় তাহলে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে। আসলে প্রথমবার মিলনের কোন নিয়ম নেই কিন্তু নারীদের ক্ষেত্রে তোমরা মিলন হবে রক্তক্ষরণের সম্ভাবনা থাকে সেজন্য একটু সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত। 

শুরুতেই আপনার স্ত্রীর যোনিতে আপনার লিঙ্গ প্রবেশ করাবেন না। আপনাকে মনে রাখতে হবে যে আপনার স্ত্রী এবং আপনি এমন একটি ঘটনার সম্মুখীন হতে যাচ্ছেন যার জন্য আপনি এবং আপনার স্ত্রী কোন অভিজ্ঞতা নেই। এমনি কি মেয়েদের ক্ষেত্রে এটি অনেক ভীতিকর বিষয় হিসেবে মনে করেন। 

সেজন্য আপনি আপনার স্ত্রীকে মিলনের পূর্বে আপনার স্ত্রীকে পর্যাপ্ত আদর করুন এবং তার মাধ্যমে উত্তেজিত করে তুলন। যখন দেখবেন আপনার স্ত্রী উত্তেজিত হয়েছে তখন আপনি আপনার লিঙ্গটাকে আপনার স্ত্রীর যোনিতে আস্তে আস্তে প্রবেশ করাবেন। কখনোই মিলন শুরুর সাথে সাথে তাড়াহুড়া করবেন না এবং প্রচন্ড জোরে আপনার লিঙ্গকে সঞ্চালন করবেন না।

ছেলেদের শারীরিক চাহিদা

শারীরিক চাহিদা ছেলে-মেয়ে উভয়েরই থাকে। তবে মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের শারীরিক চাহিদা অন্যরকম। বিবাহিত জীবনে স্বামী এবং স্ত্রীর মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়ায় শারীরিক সম্পর্ক। সেজন্য অনেক মেয়ে এবং ছেলেরাই প্রশ্ন করে থাকে ছেলেদের শারীরিক চাহিদা কত বছর পর্যন্ত হয়ে থাকে। ছেলেদের শারীরিক চাহিদা বয়স বাড়ার সাথে সাথে কমতে থাকে তার যৌন চাহিদা।

বয়স ছেলেদের যৌন জীবনের বাধা হয়ে দাঁড়ায়। বয়স বাড়ার সাথে সাথে পুরুষের শরীরে শুক্রাণুর পরিমাণ কমে যায়। বীর্য পতন খুব অল্প সময়ের মধ্যে হয়ে থাকে। এই বীর্য পতন সমাধান হতে ১২ থেকে ২৪ ঘণ্টার সময় লাগে। সেগুলো বয়স বাড়ার সাথে সাথে ছেলেদের যৌন চাহিদা কমে যায় এবং শারীরিক চাহিদা কমে যায়।

সহবাসের সময় করণীয়

আমাদের সমাজে অনেক ছেলে এবং মেয়ে আছে যারা জানেনা সহবাসের সময় করণীয় কি এ বিষয়ে সঙ্গিনীর সাথে দীর্ঘ সময় মিলন করার ইচ্ছে ছেলে বা মেয়ের উভয়েরই থাকে।এক গবেষণাতে দেখা গেছে যে, যৌন মিলন সময় ৭ থেকে ১৩ মিনিট পর্যন্ত হয়ে থাকে বিশেষজ্ঞরা বলেন টেস্ট সেক্সুয়াল ইন্টারকোর্স হচ্ছে ৭ থেকে ১৩ মিনিটের ভিতরে হয়ে থাকে। 

অন্য আরেকটি গবেষণায় দেখা হয়েছে যে, মহিলাদের ক্ষেত্রে ৩ থেকে ১৩ মিনিট সহবাস করলেই তাদের চাহিদা মিটে যায়। এখন আমরা আলোচনা করব সহবাসের সময় করণীয় কি এ বিষয়গুলো সম্পর্কে। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক সহবাসের সময় করণীয় কি বিষয় সম্পর্কেঃ

  • স্বামীর কর্তব্য হল স্ত্রীকে নিজের জ্ঞানী নিজের চাহিদার মত তার সঙ্গী দৈহিক ও মানসিক তৃপ্তি-বিধান করা। শুধু নিজের চাহিদা পরিতৃপ্ত হয় মূল লক্ষ্য হওয়া ঠিক নয়।
  • কোন প্রকার বল প্রয়োগ করা আদৌ বাঞ্ছনীয় নয়।
  • সহবাসের পুরে অবশ্যই স্ত্রীর সাথে ফোর প্লে করবেন অথবা তিনি কে বিভিন্নভাবে আদর করে তাকে করে তুলবেন তারপরে সহবাস করবেন।
  • আপনার স্ত্রী যতক্ষণ পর্যন্ত উত্তেজিত না হবে কিংবা নিজের স্থায়ী সহবাসের জন্য আপনাকে বলবে ততক্ষণ সহবাসে লিপ্ত হওয়া ঠিক নয়।
  • মেয়েরা কখনো নিজের যৌন উত্তেজনাতে মুখে প্রকাশ করে না তবে সেটা লক্ষণ দেখে বুঝে নিতে হয়।
  • যখন আপনার স্ত্রী এবং আপনি দুজনে একসাথে উত্তেজিত হয়ে যাবেন তখন ধীরে ধীরে সহবাসে লিপ্ত হতে হবে।

সহবাসের আগে কি করতে হয়

আপনারা অনেকেই রয়েছেন যারা জানেন না যে সহবাসের আগে কি করতে হয় সে বিষয়ে। এই বিষয়ে যদি আপনার কোন ধারনা না থেকে থাকে তাহলে আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়লেই জানতে পারবেন সহবাসের আগে কি করতে হয় সে বিষয়ে।

  1. স্বামীর কর্তব্য হল স্ত্রীকে নিজের জ্ঞানী নিজের চাহিদার মত তার সঙ্গী দৈহিক ও মানসিক তৃপ্তি-বিধান করা। শুধু নিজের চাহিদা পরিতৃপ্ত হয় মূল লক্ষ্য হওয়া ঠিক নয়।
  2. কোন প্রকার বল প্রয়োগ করা আদৌ বাঞ্ছনীয় নয়।
  3. সহবাসের পুরে অবশ্যই স্ত্রীর সাথে ফোর প্লে করবেন অথবা তিনি কে বিভিন্নভাবে আদর করে তাকে করে তুলবেন তারপরে সহবাস করবেন।
  4. আপনার স্ত্রী যতক্ষণ পর্যন্ত উত্তেজিত না হবে কিংবা নিজের স্থায়ী সহবাসের জন্য আপনাকে বলবে ততক্ষণ সহবাসে লিপ্ত হওয়া ঠিক নয়।
  5. মেয়েরা কখনো নিজের যৌন উত্তেজনাতে মুখে প্রকাশ করে না তবে সেটা লক্ষণ দেখে বুঝে নিতে হয়।
  6. যখন আপনার স্ত্রী এবং আপনি দুজনে একসাথে উত্তেজিত হয়ে যাবেন তখন ধীরে ধীরে সহবাসে লিপ্ত হতে হবে।

ছেলেদের উওেজনা করার উপায়

আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব ছেলেদের খুব সহজে উত্তেজনা করার উপায় সম্পর্কে। আপনারা যারা জানেন না যে ছেলেদের উত্তেজনা করার উপায় সম্পর্কে তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেল। আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়লেই আপনি একজন মেয়ে হয়ে থাকলে জানবেন যে খুব সহজে ছেলেদের উত্তেজনা করার উপায় সম্পর্কে। 

ছেলেদের আকর্ষণের স্থানটা ছেলেদের সব থেকে বেশি থাকে তার গোপন অঙ্গে তাছাড়া অন্য জায়গাগুলোতে তেমন একটি সেক্স পাওয়ার থাকে না। তবে বিভিন্নভাবে কিস করলে সেক্স পাওয়ার বৃদ্ধি পেতে পারে বা ছেলেরা উত্তেজিত হতে পারে। তুমি যদি একজন মেয়ে হয়ে থাকেন তাহলে আপনি যদি আপনার সঙ্গীকে সহবাসের জন্য উত্তেজিত করতে চান তাহলে সহবাসের পূর্বে তার গোপনাঙ্গে আদর করতে থাকুন তাহলে দেখবেন সে এমনিতেই উত্তেজিত হয়ে যাচ্ছে।

সহবাসের সময় ছেলেদের আকর্ষণের জায়গা

সহবাসের সময় ছেলেদের আকর্ষণের জায়গা সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়লে আপনি জানতে পারবেন সহবাসের সময় ছেলেদের আকর্ষণের জায়গা সম্পর্কে। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক নিচে বিস্তারিত।

  • সহবাসের সময় স্বামীকে যথাসম্ভব কাছে টেনে রাখতে হবে যেন বুকের মাঝে মিশে ফেলতে চাইছেন।
  • অধিক পরিমাণে কিস করতে হবে, স্বামীর বাহু কাধঁ, গলায় এবং মুখে। আর স্বামী যে রোগ স্ত্রীর যোনিতে তার বিশেষজ্ঞ প্রবেশ করেছেন সে রূপ স্বামীর মুখে চুম্বনের মাধ্যমে গভীরভাবে জিব্বা প্রবেশ করে দিতে হবে।
  • সহবাস করা একজন পুরুষের জন্য অত্যন্ত পরিশ্রমের কাজ তাই মাঝে মাঝে নিবিড় চুম্বনের মাধ্যমে স্বামীকে কিছু মুহূর্তের জন্য বিরতি দিতে হবে।

লেখকের শেষ কথাঃছেলেদের উওেজনা করার উপায়

আজকের আর্টিকেলটিতে আমরা আলোচনা করেছি সহবাসের সময় ছেলেদের আকর্ষণের জায়গা - ছেলেদের উওেজনা করার উপায় সম্পর্কে। আজকের আর্টিকেলটি পড়ে যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন আর আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আর আপনাদের যদি কোন মতামত বা তথ্য জানানো থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের জানাবেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url